1. iamparves@gmail.com : admin :
  2. hdtariful@gmail.com : tariful Rumon : tariful Rumon
  3. janathatv19@gmail.com : Shohag Khan : Shohag Khan
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৫০ পূর্বাহ্ন

ভারতে চিকিৎসা করাতে গিয়ে হেনস্তার শিকার বাংলাদেশি: ভাইরাল ভিডিওটির আড়ালে কি আছে সত্যিটা

অনলাইন ডেক্স
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২৩
সংগৃহীত

ভারতে চিকিৎসা করাতে গিয়ে হেনস্তার শিকার হয়েছেন বাংলাদেশি তরুণ—এমন দাবিতে ফেসবুকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ২ মিনিট ৪৪ সেকেন্ডের ভিডিওটিতে দেখা যায়, কথিত বাংলাদেশি যুবক বাবার চিকিৎসা করাতে সিলেট থেকে ভারতে গিয়েছেন। সেখানে কিছু ভারতীয় নাগরিক তাঁকে হেনস্তা করছেন।

নিউজ ভিশন নামের একটি ফেসবুক পেজ থেকে গত শনিবার (২ ডিসেম্বর) এমন একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়। ভিডিওটি আজ সোমবার (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত প্রায় ১৭ লাখ বার দেখা হয়েছে। এতে প্রতিক্রিয়া পড়েছে ৮৫ হাজার, এর মধ্যে রাগের প্রতিক্রিয়াই পড়েছে ৪৮ হাজার, কষ্টের প্রতিক্রিয়া পড়েছে ৮ হাজারের বেশি। ভিডিওটি শেয়ার হয়েছে ১১ হাজার বারের বেশি, মন্তব্য পড়েছে প্রায় ১৭ হাজার। এসব মন্তব্যে দুই ধরনের প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। বিভিন্ন ভারতীয় অ্যাকাউন্ট থেকে কথিত এই হেনস্তার ঘটনাকে সমর্থন করে মন্তব্য করতে দেখা গেছে। বিপরীতে বাংলাদেশিরা এই ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছেন।

কথিত এই হেনস্তার ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশের ছোটপর্দার অভিনেতা সিয়াম নাসির তাঁর ফেসবুক পেজে গত শনিবার (২ ডিসেম্বর) একটি ভিডিও পোস্ট করেন। তাঁর এই ভিডিও ১২ হাজার বার দেখা হয়েছে। এতে মন্তব্য পড়েছে ২৫০–এর বেশি। এসব মন্তব্যেও বাংলাদেশি ও ভারতীয়দের থেকে ভিন্ন ভিন্ন প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। তাঁর ভিডিওটি দেখুন এখানে।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, ভারতে চিকিৎসা করাতে গিয়ে কথিত বাংলাদেশি তরুণের হেনস্তার শিকার হওয়ার ঘটনাটি সাজানো, কোনো বাস্তব ঘটনা নয়।

ভিডিওটি নিয়ে অনুসন্ধানে প্রাসঙ্গিক কি–ওয়ার্ড সার্চে টিম আনকাট (Team Uncut) নামের একটি ফেসবুক পেজে সম্ভাব্য সর্বপ্রথম প্রচারিত ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়। ভিডিওটি চার দিন আগে পেজটিতে পোস্ট করা হয়। ভিডিওটির ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, ‘বাংলাদেশিরা নাকি আর INDIA আসবে না?’ পাশাপাশি বাংলাদেশ, ভারত, ক্রিকেট, আইপিএল, ক্রিকেট বিশ্বকাপ ইত্যাদি শব্দ ব্যবহার করে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করা হয়েছে। ভাইরাল, ট্রলস, আইপিএল, ক্রিকেট বিশ্বকাজ ২০২৩–এর মতো জনপ্রিয় হ্যাশট্যাগগুলো ব্যবহার করা হয়েছে।

এসব হ্যাশট্যাগ ব্যবহারের কারণে পেজটির ধরন যাচাই করে দেখে আজকের পত্রিকা। পেজটির অ্যাবাউট সেকশন যাচাই করে দেখা যায়, পেজটি বিনোদন ক্যাটাগরিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। পেজটির পরিচয় সম্পর্কে উল্লেখ করা হয়েছে, এটি দর্শকদের বিনোদনের চূড়ান্ত গন্তব্য।

অর্থাৎ ভারতে চিকিৎসা করাতে গিয়ে কথিত বাংলাদেশি তরুণের হেনস্তার শিকার হওয়ার ঘটনাটি প্রচারকারী পেজটি বিনোদনমূলক।

পরবর্তীতে পেজটি সম্পর্কে আরও যাচাই করে ভারতে চিকিৎসা করাতে গিয়ে কথিত বাংলাদেশি তরুণের হেনস্তার শিকার হওয়ার ঘটনায় প্রচারিত ভিডিওটিতে থাকা ব্যক্তিদেরই আরও একাধিক বিনোদনমূলক ভিডিওতে দেখা যায়। এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে ও এখানে।

ভারতে চিকিৎসা করাতে গিয়ে কথিত বাংলাদেশি তরুণের হেনস্তার শিকার হওয়ার ভিডিওটিতে বাংলাদেশি হিসেবে যে ব্যক্তিকে দেখানো হয়েছে, পেজটির একাধিক ভিডিওতে ওই ব্যক্তিকে বিভিন্ন চরিত্রে উপস্থিত থাকতে দেখা গেছে। তাঁর উচ্চারণও পশ্চিমবঙ্গের ভাষার সঙ্গে সাদৃশ্যপূর্ণ। এখান থেকে স্পষ্ট হয়, ওই ব্যক্তি বাংলাদেশি নন। হেনস্তার শিকার হওয়ার ভিডিওটিতে তাঁকে যারা শাসাচ্ছিলেন, তিনি তাঁদের দলেরই।

প্রসঙ্গত, একই পেজ থেকে গত রোববার (৩ ডিসেম্বর) ‘বাংলাদেশ থেকে ভারতে ডাক্তার দেখাতে আশা ছেলেটিকে অপদস্থ করায় ভারতীয় ছেলেটি বিপাকে পড়ল’ ক্যাপশনে একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়। ভিডিওটিতে আগের ভিডিওটির মতো বাংলাদেশ, ভারত, ক্রিকেট, আইপিএল, ক্রিকেট বিশ্বকাপ ইত্যাদি হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করতে দেখা যায়।

এ ছাড়া ভিডিওটির শুরুতেই একটি ডিসক্লেইমার দিয়ে বলা হয়, ভিডিওটি বিনোদনের উদ্দেশ্যে তৈরি, কাউকে আঘাত দেওয়ার উদ্দেশ্যে নয়। অবশ্য ভিডিওটি পোস্ট করার প্রায় ৯ ঘণ্টা পর পেজ থেকে ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে। আজকের পত্রিকার কাছে পোস্টটির আর্কাইভ রয়েছে।

বাংলাদেশি তরুণের হেনস্তার শিকার হওয়ার দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি সোমবার (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যার পেজটি থেকে ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে।


ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ভারতের হার নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বাংলাদেশি ক্রিকেট সমর্থকদের উদ্‌যাপন করতে দেখা যায়। এই উদ্‌যাপনের প্রতিক্রিয়ায় ভারতীয়রাও ট্রল করেন। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি একদল ভারতীয় তরুণের পরিচালিত ফেসবুক পেজে ভারতে বাংলাদেশিদের চিকিৎসা নিতে যাওয়া নিয়ে ট্রল করে আলোচিত ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। তবে বাংলাদেশি ও ভারতীয় অনেক নেটিজেন সেটিকে বাস্তব বলে বিশ্বাস করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:৪৬
  • ১২:৪৬
  • ৪:৪৯
  • ৬:৩০
  • ৭:৪৪
  • ৬:৫৮