1. iamparves@gmail.com : admin :
  2. najmulhasan7741@gmail.com : Najmul Hasan : Najmul Hasan
  3. janathatv19@gmail.com : Shohag Khan : Shohag Khan
  4. ranaria666666@gmail.com : Sohel Rana : Sohel Rana
রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ১১:৪০ পূর্বাহ্ন

আল জাজিরার প্রতিবেদন: পেছনে কারা?

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল-জাজিরার ‘অল প্রাইম মিনিস্টারস ম্যান’ শিরোনামে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন দেশজুড়ে এখন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু। ওই প্রতিবেদন ঘিরে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। বাংলাদেশের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে ইতোপূর্বেও আল-জাজিরায় প্রকাশিত খবর নিয়ে রয়েছে নানা বি’তর্ক। এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমটির বেশ সমালোচনাও করেছে দেশের বেশ কিছু গণমাধ্যম।

সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনটির ওপর ভিত্তি করে দেশের একটি অনলাইন গণমাধ্যম বাংলা ইনসাইডার ‘আল জাজিরার প্রতিবেদন: অল তারেকস ম্যান’ শিরোনামে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

‘‘গতরাতে বিতর্কিত গণমাধ্যম আল-জাজিরা বাংলাদেশ বিষয়ক এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ‘অল প্রাইম মিনিস্টারস ম্যান’ শিরোনামে তথাকথিত এই অনুসন্ধানী প্রতিবেদনটির ব্যাপ্তি ১ ঘণ্টার কিছু বেশি।

একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এত দীর্ঘ কলেবরের প্রতিবেদনে কিছু হাওয়াই অ’ভিযোগ নিয়ে চর্চা করা হয়েছে। যে কোনো সত্যনিষ্ঠ অনুসন্ধিৎসু দর্শক দীর্ঘ প্রতিবেদনটি গভীর মনোযোগ দিয়ে দেখলেই বুঝবেন, সত্যান্বেষণ নয়, বরং রাজনৈতিক প্রোপাগান্ডার জন্যই এই অনুসন্ধানী প্রতিবেদনটি তৈরি করা হয়েছে।

প্রামাণ্য চিত্রে যে সব অভিযোগ উত্থাপিত হয়েছে, তা একজনের বরাতে তিনি হলেন সামি। চাতুর্যের সঙ্গে তার পুরো নাম এবং পরিচয় গোপন করা হয়েছে সামির। সামির পুরো নাম সামিউল আলম।

২০০২ সালে ইউরোপ বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। গিয়াস উদ্দিন আল মামুনের (খাম্বা মামুন) অন্যতম বিজনেস পার্টনার। হাওয়া ভবনে তারেক রহমানের অন্যতম সহযোগী। ২০০৭ সালে ওয়ান-ইলেভেনে মোষ্ট ওয়ানটেড দু’র্নীতিবাজদের অন্যতম। তার বক্তব্যেই এই প্রামাণ্য চিত্রের মূল উপজীব্য।

তিনি নিজেই একজন জা’লিয়াত এবং দু’র্নীতিবাজ। এই প্রামাণ্যচিত্রে দুজন বক্তব্য রেখেছেন একজন বি’তর্কিত নেত্র নিউজের তাসনিম খলিল। অন্যজন যু’দ্ধা’প’রা’ধী’দের এজেন্ট এবং তারেক রহমানের বেতনভুক্ত উপদেষ্টা ড. কামাল হোসেনের জামাতা ডেভিড বার্গম্যান।

এদের বক্তব্য থেকেই বোঝা যায়, এরা স’র’কা’র’বি’রো’ধী প্রোপাগান্ডা মিশনে নেমেছে। এই প্রামাণ্য চিত্রে আরো একজনের কণ্ঠস্বর শোনা যায়, যিনি তার চেহারা দেখাননি, তিনি হলেন কনক সারওয়ার।

কনক সারওয়ার সরাসরি তারেকের কর্মচারী। লন্ডনে প’লাতক আসামি তারেক রহমানের নির্দেশেই নির্মিত এই প্রামাণ্য চিত্রটা দেখলেই বোঝা যায়, এই প্রোপাগান্ডার মূল লক্ষ্য বাংলাদেশে অ’স্থি’তিশীল পরিস্থিতি তৈরি করা।

তারেক রহমানের অনুগতরা মিলে এটি বানিয়েছে। কোনো সলিড তথ্য উপাত্ত না থাকলেও, প্রামাণ্য চিত্রে ফিল্মী কায়দায় সুপার এডিটিং আছে, আছে ভয়েজ টেম্পারিং। বিপুল ব্যয় হয়েছে প্রামাণ্য চিত্রটি নির্মাণে।

বাংলাদেশ ছাড়াও সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, হাঙ্গেরি এবং ফ্রান্সে এর দৃশ্যায়ন হয়েছে। তবে সব অ’প’রাধীই অ’প’রাধের একটা করে প্রমাণ রাখে। এই প্রামাণ্য চিত্রে এরকম অসংখ্য অসঙ্গতি রয়েছে।

প্রামাণ্য চিত্রটা যে উদ্দেশ্যপূর্ণভাবে নির্মিত, তার বেশ কিছু প্রমাণ আছে। প্রামাণ্য চিত্রের শুরুতেই হারিসকে বলা হয়েছে ‘সাইকোপ্যাথ’। মানসিক ভারসাম্যহীন একজন ব্যক্তির কোন বক্তব্যই বিবেচনার দাবি রাখে না, এই তথ্য বোধহয় তারেকের অনুগত ভাড়াটে তথাকথিত সাংবাদিকরা বোঝে নাই।

এখানে তারেক রহমানের বিজনেস পার্টনার, ক্যাসিনো সম্রাট সেলিম প্রধানকে এনে আরেকটা কাঁচা কাজ করা হয়েছে। সবাই বুঝেছে, একজন দু’র্নী’তিবাজের টাকায় আরেকজনকে দু’র্নী’তিবাজ বলার চেষ্টা হয়েছে এই প্রামাণ্যচিত্রে।
সূত্র সময় টিভি

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:১৬
  • ১২:৩৩
  • ৫:১০
  • ৭:২২
  • ৮:৪৮
  • ৫:৪১